সমাজ তৈরির কারিগরেরা আজ রাস্তায়,লজ্জা গোটা সমাজের:মান্নান

0

শীর্ষেন্দু রায় চ্যাটার্জী ,এএনএম নিউজ :রাজ্য জুড়ে প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিকে কর্মরত শিক্ষকদের দাবি কোনও ভাবেই পূরণ না হওয়ায় সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে ধর্নায় বসেছেন রাজ্যের কয়েক হাজার পার্শ্ব শিক্ষক।সেই ধর্ণার চতুর্থদিন সেই মঞ্চে একসাথে দেখা গেল কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নান, সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী ও বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্তকে।

সিপিআইএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন তাদের দাবি যুক্তিসঙ্গত।সরকার তাদেরকে জোর করছে রাস্তায় নামতে এবং মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে প্রশ্ন তুললেন যে কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া টাকা তাদেরকে কি আদৌ দেওয়া হচ্ছে ?তিনি আরও বলেন নবান্নের ১৪ তলায় কি সব ?এইভাবে চলতে থাকলে বেশি দিন আর তা থাকবে না।সরকার পার্শ্ব শিক্ষকদের সাথে অন্যায় করছে।

অপরদিকে কংগ্রেস নেতা মান্নান বলেন ,সমাজ তৈরির কারিগরেরা আজ রাস্তায় ,এটা আমাদের গোটা সমাজের কাছে লজ্জার।তিনি আরও বলেন সমস্ত বিষয়টা মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছে অনিচ্ছার অপর নির্ভর করছে।দুর্ভাগ্যক্রমে এখনো তার সময় হয়নি শিক্ষকদের সাথে দেখা করার।শিক্ষকসমাজকে বিভ্রান্ত করছে সরকার।পার্শ্ব শিক্ষকদের দাবি না মানলে আন্দোলন আরও তীব্র হবে।

প্রসঙ্গত ,দীর্ঘ পনেরো বছর ধরে কাজ করে গেলেও পার্শ্ব শিক্ষকদের সম্মান দেয়নি রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের রিপোর্টে অনুযায়ী, বেতন কাঠামো করলে আপার প্রাইমারির শিক্ষকরা পাবেন মাসে ৩৩ হাজার টাকা। আর প্রাইমারিতে পাবেন ২৬ হাজার টাকা। কিন্তু এখন প্রাইমারির পার্শ্ব শিক্ষকরা পাচ্ছেন মাসে মাত্র ১০ হাজার টাকা, আর আপার প্রাইমারিতে মাত্র ১৩ হাজার টাকা। ২০ হাজার টাকা কম! এই টাকা কোথায় যাচ্ছে? প্রশ্ন পার্শ্ব শিক্ষকদের।