রো-হিটম্যান ও গব্বরের জোড়া সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানকে উড়িয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারত

0
10

ক্লিনিক্যাল পারফরম্যান্স। প্রথমার্ধে বোলাররা আঁটোসাঁটো বোলিংয়ে পাক ব্যাটিংকে অল্প রানে আটকে রাখল। দ্বিতীয়ার্ধে গব্বর ও রো-হিটম্যান শর্মার জোড়া সেঞ্চুরিতে সহজেই সেই রান তাড়া করল ভারত। ৯ উইকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে কার্যত এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছে গেলেন রোহিতরা।

দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে এ দিন টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে সাত উইকেটে ২৩৭ রান তোলে ‘মেন ইন গ্রিন’৷ শুরুটা ভালো না-হলেও মিডল-অর্ডারে দায়িত্বশীল ইনিংস অভিজ্ঞ মালিকের৷ ভারতীয় টেনিস সুন্দরীর স্বামী শোয়েব মালিক এদিন পাক ইনিংসকে পরিত্রাতা হিসেবে উদয় হন৷ বুধবার ৪৩ রান করেছিলেন৷ আর এ দিন ৭৮ রানের ইনিংস খেলে পাকিস্তানকে সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছতে সাহায্য করেন শোয়েব৷ চতুর্থ উইকেটে ক্যাপ্টেন সরফরাজের সঙ্গে ১০৭ রান যোগ করেন মালিক৷ ৯০ বলের ইনিংসে ২টি ওভার বাউন্ডারি এবং চারটি বাউন্ডারি মারেন তিনি৷ বুমরাহের বলে উইকেটের পিছনে ধোনির হাতে ক্যাচ দিয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরেন মালিক৷

সরফরাজকে অবশ্য হাফ-সেঞ্চুরির আগেই প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান চায়নাম্যান কুলদীপ৷ ব্যক্তিগত ৪৪ রানে বাঁ-হাতি স্পিনারের শিকার পাক অধিনায়ক৷ তার পর অাসিফ আলি ২১ বলে ৩০ রানে ঝোড়ো ইনিংস খেলে পাক ইনিংসকে এগিয়ে নিয়ে গেলেও আড়াইশোর গণ্ডি ছুঁতে পারেনি পাকিস্তান৷ ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা এদিন ছ’জন বোলার ব্যবহার করেন৷ ভারতের সফলতম বোলার জসপ্রীত বুমরাহ৷ ১০ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ২৯ রান খরচ করে দু’টি উইকেট নেন বুমরাহ৷ দু’টি করে উইকেট নিয়েছেন কুলদীপ যাদব ও যুবেন্দ্র চাহাল৷ শেষ ৮ ওভারে মাত্র ৩৭ রান করতে পারে পাকিস্তান।