সাপের কামড় খেয়ে স্ত্রীকে কামড়ালেন স্বামী, কিন্তু কেন?

0

এক ব্যক্তি সাপের কামড় খেয়ে মৃত্যু আসন্ন বুঝতে পেরেছিলেন। কিন্তু এ সময়েই তিনি হঠাৎ তার স্ত্রীর হাতে কামড়ে দেন। কিন্তু কেন তার এ অদ্ভুত আচরণ?

স্ত্রীকে বড় ভালোবাসতেন শংকর রায়। হয়ত তিনি মৃত্যু আসন্ন বুঝতে পেরে চেয়েছিলেন পরকালটাও একসঙ্গে স্ত্রী-এর সঙ্গেই কাটাবেন। সেই কারণে বিষধর সাপের কামড় খেয়ে নিজের স্ত্রীর কব্জিতে কামড় দেন তিনি। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বিহারের সমস্তিপুর জেলায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে , শংকর রায় এবং তার স্ত্রী আমিরি দেবী বিহারের সমস্তিপুর জেলায় বীরসিংহ গ্রামের বাসিন্দা। গত শনিবার যখন ওই দম্পতি ঘুমাচ্ছিলেন সেই সময় একটি বিষাক্ত সাপ শংকরকে কামড় দেয়। সাপের কামড়ে তার ঘুম ভেঙে যায়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছে বুঝতে পেরে আবেগ প্রবণ হয়ে পড়েন তিনি। স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ইহলোক ত্যাগ করার মতো চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন।

জীবনের অন্তিম ইচ্ছা পূরণ করতে বেশীক্ষণ সময় নেননি সংকর রাই।  এরপরই স্ত্রীর হাতে কামড়ে দেন তিনি। তারপর দু’‌জনেই অচৈতন্য হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে তাদের হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের লোকেরা। শংকর মারা গেলেও কপাল জোরে বেঁচে যান তার স্ত্রী আমিরি দেবী। সম্পূর্ণ সুস্থ না হলেও প্রাণে বেঁচেছেন তিনি। মৃত্যুর আগে শঙ্করের এই আচরণ নিয়ে অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করেন।

আমিরি দেবীই সন্দেহ নিরসনে জানান, তার স্বামীর ইচ্ছা ছিল এক সঙ্গে মরবেন। যাতে মৃত্যুর পরেও দু’‌জনে এক সঙ্গে থাকতে পারেন। কিন্তু দুঃখের বিষয়, চেষ্টা করেই তার শেষ ইচ্ছা পূরণ করতে পারেননি তিনি। বিহারের বীরসিংহপুরের এই ঘটনায় তাজ্জব গ্রামবাসীরা। আশপাশের প্রায় চার পাঁচটা গ্রামে শংকর আর আমিরির এই প্রেমের কথা এখন মুখে মুখে ঘুরছে। ‌‌