বিজেপি-র বিরুদ্ধে থানায় ছুটেছিলেন শোভন! সেই বিজেপি-র ঘরেই কলকাতার প্রাক্তন মেয়র! আসল রহস্য জানেন কি?

0
5

নিজস্ব সংবাদদাতা : বাংলায় ধীরে ধীরে নিজেদের ভীত শক্ত করছে বিজেপি? বেড়েছে ভোটের শতাংশ! মুকুলের হাত ধরে বহু তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতারা ভিড় জমিয়েছে পদ্ম শিবিরে। কিন্তু এর মাঝেই তৈরি হয়েছে রাজনীতির নয়া সমীকরণ! বঙ্গে বিজেপি-র বিভাজন! তাহলে কি বাংলায় দীর্ঘদিনের বিজেপি নেতাদের উপর থেকে আস্থা হারাচ্ছে গেরুয়া শিবির? দিলীপ-রাহুলে কি আগের মতই ভরসা আছে মোদী-শাহের? তাহলে কেন বাংলায় বিজেপির ‘গড়’ গড়ে তুলতে তৃণমূলীদেরই দলে টানা হচ্ছে? একসময় দুর্ণীতিগ্রস্থদের দলে নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছিল যে দল, সেই দলই কেন ঠাঁই দিচ্ছে শোভনের মত নারদা কেলেঙ্কারীতে জড়িতদের? এমনকি এই বিজেপি-র বিরুদ্ধেই একসময় থানায়ও ছুটেছিলেন কলাকাতার প্রাক্তন মেয়র! সরব হয়েছিলেন রাস্তায়! এরপরেও কেন সেই পদ্ম শিবিরেই শোভন?  তাহলে কি বঙ্গে বিজেপির অন্দরেই তৈরি হচ্ছে তৃণমূলের ‘বি’ টিম।

হ্যাঁ, এই আশঙ্কা অনেক আগেই আঁচ করেছিলেন পশ্চিমবাংলার বিজেপি নেতাদের একাংশ। এএনএম নিউজের কাছে গোপন সূত্রে খবর, এই নিয়ে ক্ষোভও উগরে দিয়েছিলেন অনেকে। কিন্তু কেনো লাভ হয়নি। আগে অনুপম-সৌমিত্র-শুভ্রাংশুর মত এবারও পদ্ম শিবিরে শোভন-বৈশাখী। সূত্রের খবর, বিধাননগরের প্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্তও বিজেপি-র হাত ধরছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিজেপি নেতার দাবি, এরকম তৃণমূলী নেতাদের বিজেপিতে নিলে আসলে দলেরই ক্ষতি। যার ফলে সাধারণ মানুষও মুখ ফিরিয়ে নিতে পারে। নাহলে বিজেপি-র ঘরে তৃণমূলের ‘বি’ টিমে পরিণত হওয়া কেবল সময়ের অপেক্ষা।