এএনএম নিউজ ডেস্ক: এর আগে হায়দ্রাবাদে তেলঙ্গানার নালগোণ্ডা জেলার একটি গ্রামে প্রায় ৫০টি কুকুরকে বিষ খাইয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে আবার। তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই কুকুরগুলিকে মারার নির্দেশ দিয়েছিলেন গ্রামের সরপঞ্চ। মেরে ফেলার পরে ওই কুকুরগুলির মৃতদেহ একটি ট্রাকে করে নিয়ে গিয়ে নদীর কাছে ফেলে আসা হয়। কোনও ভাবে সেই মৃতদেহ ফেলার ছবি প্রকাশ্যে আসতেই ঘটনার নিন্দায় ফেটে পড়েন সকলে। হায়দরাবাদে কয়েক দিন আগের মেলা খবরের পরে, কুকুর মারার আরও একটি ঘটনার কথা ফের জানা গিয়েছে। পুরসভার চার আধিকারিককে সাসপেন্ডও করা হয়েছে এই ঘটনায়। তাঁদের বিরুদ্ধে ৭৮টি কুকুরকে বিষ প্রয়োগ করে মারার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় এফআইআর-ও দায়ের করা হয়েছে। কুকুরগুলির ময়না-তদন্তের পরই জানা যায় বিষ প্রযোগ করে তাদের মারা হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে ব্যপক হইচই করেন বিজেপি সাংসদ ও পশুপ্রেমী মানেকা গাঁধী।