ক্যামেরায় ধরা পড়ল পরী, এলিয়েন নাকি আরেকটি গুজব? (ভিডিওসহ)

0
6

এএনএম নিউজ ডেস্ক :বহুবার বিভিন্ন ভিডিওতে অস্বাভাবিক কিছু বিষয়াদি ঘটতে দেখা গেছে। হঠাৎ করেই জড় কোনো বস্তু নড়ে ওঠা কিংবা বিভিন্ন আকৃতির প্রাণীর উপস্থিতিও দেখা গেছে কিছু ভিডিওতে। অনেকেই দাবি করেন, সেগুলো এলিয়েনের কাজ; আবার কারো দাবি এগুলো জ্বিন-পরী করে আসছে।

এবার মার্কিন নারী ভিভিয়ান গোমেজ একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করেছেন, তার বাড়ির বাইরে রহস্যময় কিছু ঘুরে বেড়াচ্ছে। অনেকেই বলছেন, সেটা পরী। আবার কেউ বলছেন, ভিডিওতে দেখতে পাওয়া প্রাণী আসলে এলিয়েন।

কিন্তু সেই প্রাণীটি কি আসলেই এলিয়েন, পরী নাকি ভিডিওটি কোনো প্রযুক্তির সহায়তায় এভাবে নির্মাণ করা। এদিকে বহু সংবাদমাধ্যম এ ব্যাপারে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। পাঠকদের অনেকেই সরলভাবে তা বিশ্বাসও করেছে। তবে ভিডিওটি নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্নও উঠেছে।

প্রযুক্তির এই চরম উৎকর্ষতার যুগে এসে বিষয়টির ব্যাখ্যা জরুরি হয়ে পড়েছে। ভিডিওটিতে দেখতে পাওয়া প্রাণীটি এলিয়েন কিংবা পরী না হলে, ঠিক কী কারণে এ ধরনের দৃশ্য তৈরি হলো তার ব্যাখ্যা দরকার। ভিডিওটি সম্পাদনা করা কিংবা কোনো কৌশলে ধারণ করা কিনা সেটাও জানা দরকার।

গোমেজ ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছেন, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে আমার বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে এটি দেখতে পাই এবং এ ব্যাপারে পরিষ্কারভাবে জানতে চাই … ভিডিওতে থাকা প্রাণীটি আসলে কি?

তিনি আরো বলেন, প্রথমে আমি সামনের বারান্দায় একটি ছায়া দেখতে পাই। এরপর বিষয়টি লক্ষ করি। কেউ কি তাদের ক্যামেরায় এ ধরনের কিছু দেখেছে? অথচ আরো দুই ক্যামেরায় কিছুই ধরা পড়েনি।

গোমেজের পোস্টে এক ব্যক্তি কমেন্ট করেছেন, এলিয়েন নেমে এসেছে। কেউ বলেছেন, একটি বাচ্চা মজা করে এভাবে সেজেছে।

একজন লিখেছেন, ভালোভাবে খেয়াল করলে দেখা যাবে, হাফ প্যান্ট পরে সারা গায়ে আটা মেখে একটি বাচ্চা ভেংচি কেটে ক্যামেরার সামনে দিয়ে হেলেদুলে হেঁটে যাচ্ছে। এমনকি সেই বাচ্চার মাথায়ও কিছু একটা বাঁধা আছে।

গোমেজকে একজন প্রশ্ন করেছেন, আপনার ছেলের কি ঘুমের মধ্যে হাঁটার অভ্যাস আছে?

তবে গোমেজ সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি জানেন না আসলে সেই ভিডিওতে দেখতে পাওয়া প্রাণীটি কে বা কি?

প্রযুক্তিবিদরা মনে করছেন, চলচ্চিত্রের টেকনিক ও টেকনোলজির উন্নয়নের কারণে এ ধরনের ভিডিও ধারণ করা সম্ভব হয়েছে। এলিয়েন কিংবা পরী নয়, বরং কোনো বাচ্চাকে এলিয়েনের মতো করে মেকাপ করিয়ে দেয়ার পর কায়দা করে ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছে।

ভিডিওটি আসল নাকি বানানো, তা জানার জন্যও বিভিন্ন ধরনের অ্যাপস ও ওয়েবসাইট রয়েছে। সেরেলে, ফটো ফরেনসিক এবং গুগলে রিভার্স ইমেজে সার্চ দিয়ে ছবির বিস্তারিত তথ্য জানা যায়। এমনকি ভিডিওটি সর্বপ্রথম কখন, কোন অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়েছে, সেটাও জানা সম্ভব ইনভিড ভেরিফিকেশন প্লাগইন ব্যবহার করে। তবে দুর্ভাগ্যবশত এই ভিডিওটি সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানাতে পারেনি ইনভিড ভেরিফিকেশন।