এএনএম নিউজ ডেস্ক: সেভেনথ টাইম লাকি। চলতি আইপিএলে টানা ছয় ম্যাচে হারের পর শনিবার শেষমেশ মুখে হাসি ফুটল আরসিবি নেতার। অশ্বিনের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে হারিয়ে সপ্তম ম্যাচে জয়ের খাতা খুলল কোহলি অ্যান্ড কোং। কিন্তু জয়ের পরই বড়সড় শাস্তির মুখে পড়তে হল ক্যাপ্টেন কোহলিকে। ১২ লক্ষ টাকা জরিমানা হল তাঁর।

লাগাতার ম্যাচ হারে জর্জরিত রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর যেনতেন প্রকারে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল। বিরাট কোহলিও জানিয়ে দেন, হারের জন্য আর কোনও অজুহাত দিতে চান না তিনি। এবার কিছু করে দেখাতেই হবে। শনিবার প্রীতি জিন্টার দলের বিরুদ্ধে টস জিতে রান তাড়া করার সিদ্ধান্ত নেন বিরাট। ১৭৩ রানে পাঞ্জাবকে আটকে দেয় তাঁর দল। জবাবে মাত্র ৮ উইকেটেই ম্যাচ জিতে নেন কোহলিরা। ব্যাট হাতে ৫৩ বলে ৬৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন অধিনায়ক। তবে ৩৮ বলে ৫৯ রান করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন ম্যাচের সেরা এবি ডিভিলিয়ার্স। দুই তারকা ব্যাটসম্যানকে ফের স্বমহিমায় পেয়ে উচ্ছ্বসিত ক্রিকেটপ্রেমীরাও।

কিন্তু ভাল খেলেও শাস্তির মুখে পড়তে হল কোহলিকে। দলের স্লো-ওভার রেটের জন্যই ১২ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। চলতি টুর্নামেন্টে যেহেতু তাঁর এটি প্রথম অপরাধ, সেই কারণেই আইপিএলের কোড অফ কনডাক্ট অনুযায়ী এই পরিমাণ জরিমানাই হয়েছে তাঁর। উল্লেখ্য, রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে ম্যাচ চলাকালীন মাঠের মধ্যে ঢুকে আম্পায়ারদের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। যার শাস্তিস্বরূপ তাঁর ৫০ শতাংশ ম্যাচ ফি কাটা গিয়েছে। আবার এই টুর্নামেন্টেরই একটি ম্যাচে রোহিত শর্মার বিরুদ্ধেও স্লো-ওভার রেটের অভিযোগ উঠেছিল। এবার মোটা অঙ্কের জরিমানা হল আরসিবি নেতারও।