লকডাউনের মাঝে বাড়িতে কলগার্ল ডেকে বিপাকে ম্যান সিটির ফুটবলার

0
203

এএনএম নিউজ ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের কারণে পুরো বিশ্বই কার্যত লকডাউনে আছে। নিজের এবং অন্যদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে সামাজিক দূরত্ব পালন করা এবং অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে দায়িত্বশীল সব মহল থেকে।এমন অবস্থায় অভাবনীয় এক কাজ করে বসলেন ম্যানচেস্টার সিটির ইংলিশ রাইট ব্যাক কাইল ওয়াকার। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় গত ২৩শে মার্চ তিন সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করে বৃটেন। সবধরনের গণজামায়েত নিষিদ্ধ করা হয়। পরদিন নিজের বিলাসবহুল এপার্টমেন্টে দুই কল গার্লকে ডাকেন ওয়াকার। বৃটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সান পতিতাদের একজনের পরিচয় জানিয়েছে। ২১ বছর বয়সী সিঙ্গেল মাদার লুসি ম্যাকনামারা। যার সঙ্গে ছিল ২৪ বছর বয়সী এক ব্রাজিলিয়ান কলগার্ল।দুজন একই ট্যাক্সি ক্যাবে করে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১০টায় পৌঁছেন কাইল ওয়াকারের চেশায়ারের বাড়িতে। এরপর ওয়াকারের এক বন্ধু কলগার্লদের নিয়ে যায় ইংলিশ ফুটবলারের এপার্টমেন্টে।দ্য সানকে লুসি বলেছে, আমি ম্যানচেস্টারের এক এজেন্সির হয়ে কাজ করি। বসের কাছ থেকে একটা মেসেজ পাই যেখানে তিনি লিখেন, একজন হাইপ্রোফাইল ক্লায়েন্ট ক্ল্যাসি কাউকে খুঁজছেন। ক্যাবের ড্রাইভার ঠিকানানুযায়ী এপার্টমেন্টের গেটে আমাকে নামিয়ে দেয়। তার এক বন্ধু আমার সঙ্গে সাক্ষাত করেন। গাড়িতে আরেকটি মেয়ে ছিল। সে না বলার আগ পর্যন্ত আমি জানতাম না যে কাইল ফুটবল তারকা।

কারণ নিজের পরিচয় গোপন রেখেছিল কাইল। কিন্তু আমি তার কয়েকটি ছবি তুলে রেখেছিলাম। লুসির তোলা একটি ছবিতে দেখা গেছে, টাকা গুনছেন কাইল। তিনি ও তার বন্ধু তিন ঘণ্টা ফূর্তির বিনিময়ে ২ হাজার ২০০ পাউন্ড দিয়েছেন ওই দুই কলগার্লকে। পাওনা হাতে পাওয়ার পর রাত ২টার দিকে বেরিয়ে গিয়েছিল তারা।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here