বাজেট স্পেশাল: বন্ধ শিল্প নতুন করে চালুর দাবি অসহায় পরিবারগুলির

0
123

হরি ঘোষ, রানিগঞ্জ: বন্ধ হয়ে গেছে সংস্থা। গত কয়েক বছরে চোরেদের দাপটে কারখানা ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। সে কথা স্বীকার করছেন বর্তমানের নিরাপত্তারক্ষীরা। এখনো বাকি রয়েছে বকেয়া টাকা। অনেকে মারাও গেছেন, অনেকে চলে গেছেন অন্যত্র। এখনো কিছু পরিবার রয়েছে ওই সংস্থারই আবাসনে। কিন্তু কাজ না থাকায় দিশাহারা এই সমস্ত শতাধিক পরিবার। তাই কেন্দ্রীয় বাজেটে বন্ধ শিল্প নতুন করে চালু করার দাবি রানিগঞ্জবাসীর।

রানিগঞ্জ শিল্প শহরের অন্যতম গর্ব ছিল “বার্নস অ্যান্ড কোঃ লিঃ”। কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ এই সংস্থাতে তৈরি হতো উন্নতমানের সিলিকা ও ফ্লাই অ্যাশ ইট যা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে উন্নত মানের ইস্পাত কারখানায় ব্যবহার হতো। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ এই কারখানা ২০০০ সালের অক্টোবর মাসে বন্ধ হয়ে যায়। লাভজনক এই সংস্থায় তৎকালীন কর্মরত অবস্থায় ছিলেন প্রায় ২০০০ জন স্থায়ী শ্রমিক। তাছাড়াও এই কারখানাকে কেন্দ্র করে রানিগঞ্জ শহর ছাড়াও আশেপাশের অঞ্চলের প্রচুর মানুষ জীবিকা নির্বাহ করতো। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে লাভজনক এই কারখানাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর ফলে কর্মহীন হয়ে যায় কয়েক হাজার মানুষ। একদা কর্মরত শ্রমিক নন্দলাল সিং, রাকেশ থাপা জানান কারখানা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে তারা কর্মহীন হয়ে পড়েন। ঘরের ছেলে-মেয়েদের পড়াশোনা বন্ধ হয়ে যায়। সংসারের তাগিদে তারা কেউ চায়ের দোকান কেউ বা দিনমজুরির কাজ করে থাকেন। অনেকে খাদ্যের অভাবে মারা গেছেন বলে তারা দাবি করেন। রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে বহু আন্দোলন সংঘটিত হলেও এই কারখানা এখন পর্যন্ত চালু হয়নি। তাই তারা তাকিয়ে আছেন বাজেটের দিকে যদি এই কারখানাটির দিকে সরকার নজর দেন।

একই দাবি জানিয়েছেন রানিগঞ্জের বিধায়ক রুনু দত্ত। তিনি জানান, “যে সমস্ত কল-কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে সেগুলো খোলা ও নতুন করে শিল্প স্থাপনের দিকে নজর রাখা উচিত সরকারের”।

আরো পোস্ট-http://anmnews.in/?p=169925

https://anmnews.in/?p=169917

ANM NEWS WhatsApp Group| এখন দিনের টাটকা তাজা খবর আপনার হাতের কাছে পেতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন— https://chat.whatsapp.com/LnGqZu86Wei9CsNCSPuwBO